• রংপুর
  • রবিবার, ১৬ মে, ২০২১

রংপুর রেন্জ শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান


প্রকাশ : বুধবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২০

আবু জাফর সোহেল রানা, কুড়িগ্রাম।

রংপুর রেন্জ ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য বিপিএম কুড়িগ্রামের এসপি মহিবুল ইসলাম কে রেন্জ শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপারের ঘোষনা দিয়ে ভার্চুয়াল সভার মাধ্যমে অভিনন্দন জানান । এ সময় রংপুর রেন্জ শ্রেষ্ঠ থানা হিসেবে উলিপুর থানার নাম ঘোষনা করেন।

সততা,মানবিকতা,দক্ষতা,কর্তব্যনিষ্ঠা,পুলিশিং কার্ষক্রমে জনগনের আস্থা ও সম্পৃক্ততার সর্ব্বোচ্য উদাহরন সৃষ্টি করে মাদক উদ্ধার, ক্লু লেস হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন,ওয়ারেন্ট তামিল,সুষ্ঠ ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা,অপরাধ নিয়ন্ত্রন,নারী-শিশু, বয়স্ক, প্রতিবন্ধি দের আইনি সুরক্ষায় হেল্প ডেস্ক চালু, নিয়মিত মাসিক সভা ও শৃংখলামুলক আচরণে প্রশংসিত হয়ে রংপুর রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার নির্বাচিত হয়েছেন কুড়িগ্রামের মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান বিপিএম।

মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) সকালে রংপুর রেন্জের সম্মেলন কক্ষ থেকে ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য বিপিএম রেন্জের সকল পুলিশ কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ২০২০ সালের অক্টোবর মাসের মাসিক মূল্যায়ন সভায় রংপুরের সকল ইউনিটগুলোর সাথে সংযুক্ত হন। ২০২০ সালের অক্টোবর মাসের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ও সার্বিক কার্যক্রম বিবেচনায় রংপুর রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার নির্বাচন করা হয় হয় বলে জানা যায়।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান জানান, এই অর্জন শুধু আমার একার নয়। জনগন ও মিডিয়াকর্মী যারা তথ্য দিয়ে পুলিশ কে সহযোগিতা করেছে ও বিভিন্ন সমস্যার উপর আলোকপাত করে পুলিশের কাজ ও সেবায় ক্ষেত্র প্রশস্ত করতে এগিয়ে এসেছে তারা সহ কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশের প্রতিটি সদস্য এই সফলতার দাবিদার। কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশের প্রতিটি সদস্য আরো উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে কাজ করে জেলা পুলিশের জন্য বারবার সফলতা বয়ে আনবে এটাই আমার প্রত্যাশা।

অনুষ্ঠানে রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি সকল ইউনিট সমূহের আইন-শৃঙ্খলা ও সার্বিক পরিস্থিতি মূল্যায়ন করে বিভিন্ন বিষয়ে দিক-নির্দেশনামূলক বক্তব্য প্রদান করেন।

মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান ২০১৯ সালের ২৩ জুন পুলিশ সুপার হিসেবে কুড়িগ্রামে যোগদান করেন। যোগদানের পরই প্রথম চ্যালেন্জ পুলিশের কনস্টেবল পদে স্বচ্ছ নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে জেলাবাসীর কাছে প্রশংসিত হন। জেলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ, মাদকবিরোধী সফল অভিযান, যোগদানের আগের অমীমাংসিত ও ক্লু লেস হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন সহ পলাতক আসামীদের আটক এবং থানাগুলোর সাথে জনগনের সরাসরি সম্পর্ক স্থাপনে সফলতা অর্জন করেন। করোনা মহামারিতে জনসচেতনতামূলক ব্যাপক প্রচার প্রচারনা ও মাস্ক আপ কুড়িগ্রাম ক্যাম্পেইন, কর্মহীন হয়ে পড়া হাজারও মানুষের কাছে খাদ্য সহায়তা পৌঁছানো, শীত ও বন্যা দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানো, প্রতিবন্ধি দের চিকিৎসা খাদ্য বস্ত্র হুইল চেয়ার দিয়ে সহযোগীতাসহ বিভিন্ন মানবিক কর্মকাণ্ডে যুক্ত থেকে জেলাবাসীর আস্থা কুড়িয়ে মানবিক পুলিশ সুপার হিসেবে ভূষিত হয়েছেন এই কর্মকর্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ই-মেইল : news.ajkersamaj@gmail.com
এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020
Desing & Developed by Moksadul Momin